জুড়ীতে তিন মার্কেটের ভাড়া মওকুফ করলেন মাতাব মিয়া

সিলেট বিডি নিউজ
প্রকাশিত ২, মে, ২০২১, রবিবার
জুড়ীতে তিন মার্কেটের ভাড়া মওকুফ করলেন মাতাব মিয়া

মনিরুল ইসলাম: মহামারী করোনায় পুরো বিশ্ব এখন স্থবির। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ইতিমধ্যে বাংলাদেশ হানা দিয়েছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সংক্রমণ রোধে গত মাসের ১৪ এপ্রিল থেকে চলছে সরকার ঘোষিত লকডাউন। যার ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে মানুষের কর্ম ব্যস্ততা। দেশব্যাপী দেখা দিয়েছে নানা সংকট। গত বছর থেকে করোনার লকডাউনের বিভিন্ন সময়ে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ব্যবসায়ীরা পড়েছেন চরম সংকটে। সংসার চালানোর পাশাপাশি তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে দোকান ভাড়া নিয়ে। ব্যবসায়ীদের সংকটের কথা চিন্তা করে এক মাসের দোকান ভাড়া মওকুফ করে মানবতার হাত বাড়ালেন এক মার্কেট মালিক।

মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত হাজী মাতাব ম্যানশন এর তিনটি মার্কেটের দোকান ভাড়া মওকুফ করলেন সমাজসেবক হাজী মাতাব মিয়া। গতবছরও করোনার লকডাউনে ব্যবসায়ীরা যখন পড়েছিল চরম সংকটে তখনও দেড় মাসের ভাড়া মওকুফ করে ব্যবসায়ীদের প্রতি মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে জানা যায়, হাজী মাতাব ম্যানশনের তিনটি মার্কেটে রয়েছে ২৭ টি দোকান ঘর রয়েছে। ব্যবসায়ীদের লোকসানের কথা চিন্তা করে তিনি সবগুলো দোকানের ভাড়া এক মাসের জন্য মওকুফ ঘোষণা করেন। দোকান ভাড়া মওকুফের ঘোষণায় খুশি ব্যবসায়ীরা।

হাজী মাতাব ম্যানশনের চৌমুহনীর মার্কেটের ব্যবসায়ী জয়ন্ত চন্দ শীল বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে গত ১৪ তারিখ থেকে দোকান বন্ধ থাকার ফলে আমাদের লোকসান গুণতে হয়েছে। এ অবস্থায় দোকানের ভাড়া নিয়ে আমরা দুশ্চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু মার্কেটের মালিক এক মাসের ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দেয়ায় আমরা অনেকটা স্বস্থিতে আছি। আমি আশা করব দেশের প্রতিটি মার্কেটের মালিক যেন এভাবে ব্যবসায়ীদের পাশে দাঁড়ান।

হাজী মাতাব ম্যানশনের মালিক হাজী মাতাব মিয়ার ছেলে যুবায়ের আহমেদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে লিখেন, করোনা সংকটের এই কঠিন সময়ে আমাদের আব্বা হাজী মাহতাব মিয়া’র মালিকানাধীন ৩ টি মার্কেটের ২৭টি দোকানের লকডাউন সময়কালীন গতমাসের ভাড়া আগের বারের মতো না নেওয়ার পারিবারিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
সবার প্রতি বিনীত অনুরোধ এই সংকটে ব্যবসায়ীদের পাশে থাকবেন।

করোনার সংকটকালে ব্যবসায়ীদের ভাড়া মওকুফ করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত কয়েকদিন আগে ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলাম সপু করোনার এ সংকট কালে মালিকদেরকে ব্যবসায়ীদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। আলাপকালে ব্যবসায়ী সপু বলেন, হাজী মাতাব মিয়ার মতো সকল মালিকদের ব্যবসায়ীদের পাশে দাঁড়ানো উচিত।

হাজী মাতাব ম্যানশন মার্কেটের মালিক সমাজসেবক হাজী মাতাব মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন থেকে ব্যবসায়ীরা করোনার কারণে লোকসানে আছেন। তাঁদের লোকসানের কথা চিন্তা করে আমি এক মাসের ভাড়া মওকুফের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এক মাসের ভাড়া না নিলে আমার তেমন কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু দোকানপাট বন্ধ থাকার কারণে ভাড়া নিলে ব্যবসায়ীরা অনেক সমস্যায় পড়বেন। সেই কথা মাথায় রেখে আমি এক মাসের ভাড়া নেব না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। করোনাভাইরাস মোকাবেলা করতে হলে আমাদেরকে এভাবে একে অপরের পাশে দাঁড়াতে হবে। তিনি আরোও বলেন, করোনার‌ এ সংকট কালে সকল মার্কেটের মালিককে এভাবে ভিাড়াটিয়াদের পাশে এগিয়ে আসতে হবে। অন্যথায় আমাদের সকলেরই অনেক ক্ষতি হবে।

 1,817 total views

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 1.4K
    Shares
error: Content is protected !!